টেলিকম

সিম ও নেটওয়ার্ক ছাড়াই মোবাইল থেকে কল করুন, এই ভাবে

সিম ও নেটওয়ার্ক ছাড়াই মোবাইল থেকে কল করুন ইন্টারনেট টেলিফোনি  (Internet Telephony) এর, মাধ্যমে

মোবাইল নেটওয়ার্ক এর সমস্যার জন্য প্রায় প্রত্যেক ব্যক্তিই বিভিন্ন আসুবিধার স্বীকার হয়ে থাকেন। যদি সিগন্যাল পাওয়া না যায় তবে ইন্টারনেটতো চলেই না, কখনও কখনও প্রয়োজনের কল করাও সম্ভব হয় না। দ্রুত এই সমস্যার সমাধানের জন্য একটি পরিষেবা আসছে। এই পরিষেবাটি ইন্টারনেট টেলিফোনি  (Internet Telephony) নামে পরিচিত হবে। এই কৌশলের মাধ্যমে আপনি যে কোন স্থান বা অফিস থেকে কোনও নেটওয়ার্ক ছাড়ায় বাড়িতে কল করতে সক্ষম হবেন।

সরকার দিল অনুমতিঃ-  সরকার এই ধরনের প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে। টেলিকম অপারেটরদের ইন্টারনেট টেলিফোনি  (Internet Telephony) এর একটি লাইসেন্স নিতে হবে। এই লাইসেন্সধারী কোম্পানিগুলি গ্রাহকদের কাছে এই সুবিধা প্রদান করতে সক্ষম হবে। এই ফিচারসটির জন্য কোন ধরণের SIM এর প্রয়োজন নেই। এটি অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে সক্রিয় করা হবে।

ট্রাই দিয়েছে অনুমতিঃ-  ইন্টারনেট টেলিফোনি (Internet Telephony) সম্পর্কে ট্রাই গত বছরের অক্টোবরে অনুমতি দিয়েছে। এইটির পিছনে ট্রই এর লক্ষ্য কল ড্রপ সমস্যার মোকাবেলা করা। এই পরিষেবাটি সঠিক ভাবে চালু করা গেলে এই কল ড্রপ সমস্যা শেষ হবে এবং দেশ থেকে খারাপ নেটওয়ার্ক সমস্যা মুছে ফেলা যাবে বলে ট্রাই আশাবাদী।

আরও পড়ুনঃ- জিয়ো লঞ্চ করল Jio Interact প্ল্যাটফর্ম, এর মাধ্যমে আপনিও অমিতাভ বচ্চনের সাথে কথা বলতে পারবেন

টেলিকম কমিশন মঞ্জুর করেছে প্রস্তাবঃ-  আন্তঃমন্ত্রণালয় টেলিকম কমিশন এই প্রস্তাবটির অনুমোদন করেছে। রিলায়েন্স জিও, এয়ারটেল সহ অন্যান্য অপারেটররা এটি চালু করতে সক্ষম হবে। ট্রাই’র উপদেষ্টা অরবিন্দ কুমারের মতে, “এই সার্ভিসের আগমনের পর গ্রাহকদের অনেক উপকার হবে।এই সার্ভিসের সবচেয়ে বড় সুবিধাটি হবে সেই সমস্ত ব্যক্তিদের যাদের লোকেশনে কানেটিভিটির সমস্যা আছে। মাল্টিস্টোর বিল্ডিং থেকে মেট্রো শহর পর্যন্ত এলাকায়, যেখানে অনেক ধরনের নেটওয়ার্ক সমস্যা আছে। যেখানে টেলিকম সংকেত দুর্বল কিন্তু ওয়াই ফাই পরিষেবা ভাল।এই সমস্ত জায়গায় কাজ করবে এই পরিষেবা।”

ইন্টারনেট টেলিফোনি (Internet Telephony) কিভাবে কাজ করবেঃ-

ইন্টারনেট টেলিফোনি (Internet Telephony) পরিষেবাটি অ্যাপ্লিকেশন মাধ্যমে ব্যবহার করা যাবে। এই অ্যাপ্লিকেশনটি বিভিন্ন সিম অপারেটর মাধ্যমে দেওয়া হবে। এটি হতে পারে যে প্রতিটি অপারেটরের নিজস্ব আলাদা অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করা হবে। এর সাথে, ১০ সংখ্যার একটি মোবাইল নম্বর দেওয়া হবে যা এখনকার মোবাইল নম্বরের মতোই হবে।যদি সহজেই বুঝতে হয় তাহলে আপনি যদি এয়ারটেল সিম ব্যবহার করেন এবং আপনি যদি জিও এর ইন্টারনেট টেলিফোনি অ্যাপ নেন, তাহলে আপনি জিও এর তরফ থেকে একটি আলাদা নম্বর পাবেন। এই নম্বর এবং অ্যাপ্লিকেশন ব্রডব্যান্ড অথবা যে কোন ওয়াই-ফাই এর মাধ্যমে ব্যবহার করতে হবে।

নম্বর পরিবর্তন করার প্রয়োজন নেয়ঃ-

আপনি বর্তমানে যে সিম ব্যাবহার করছেন, যদি সেই অপারেটরের অ্যাপ ব্যবহার করেন, তবে সেই অবস্থাতে আপনার নম্বর পরিবর্তন করার কোন প্রয়োজন নেই। ট্র্যাই এর তরফ থেকে এই সেবাটিতে বেশি জোর দেওয়া হয়েছে কারণ এটি কল ড্রপের সমস্যা থেকে পরিত্রাণের পাশাপাশি খারাপ নেটওয়ার্কের পরিত্রাণ করবে এবং ভয়েস কলিংটিও সাশ্রয়ী হবে।

Please follow and like us: