অন্যান্য টেক

এবার ফ্লাইটেও করা যাবে ইন্টারনেট, করতে পারবেন ফেসবুক-হোয়াটস অ্যাপ। কিন্তু দিতে হবে একটু বেশি দাম

এবার ফ্লাইটেও (flight) করা যাবে ইন্টারনেট করতে পারবেন ফেসবুক,হোয়াটস অ্যাপ। কিন্তু দিতে হবে একটু বেশি দাম

টেলিকম বিভাগ এখন বিমানের যাত্রীদের জন্য ফ্লাইটে ইন্টারনেট ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে (use internet in flight) । এর মানে হল এবার থেকে উড়োজাহাজের মধ্যেও আপনি ইন্টারনেট সার্ফ করতে পারবেন, করতে পারবেন চ্যাট এবং ফ্লাইটে কথাও বলতে পারবেন। পরবর্তী ৩ থেকে ৪ মাসের মধ্যে, সমস্ত দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার বিমান যাত্রীরা বিমানের মধ্যে ইন্টারনে ব্যাবহার করতে সক্ষম হবে।

ভারতে ইন-ফ্লাইট কানেক্টিভিটির জন্য টেলিকম ডিপার্টমেন্টের আধিকারিক অরুণা সুন্দরজান একটি সবুজ সংকেত দেখিয়েছেন। এর মানে হল যে এয়ারলাইনগুলি এখন বিমানের যাত্রীদের জন্য টেলিকম সংযোগ এবং ইন্টারনেট সরবরাহ করতে সক্ষম হবে। যাইহোক, এই পরিষেবাটি কেবলমাত্র সেই সমস্ত বিমানেই পাওয়া যাবে, যে বিমান গুলি ৩ হাজার মিটার বা তার বেশি উচ্চতায় উড়েবে।

আরও প্রুনঃ- হোয়াটস অ্যাপের এই নতুন 4 টি আপডেট সম্পর্কে না জানলে এখনই জেনে নিন,না জানলে অনেক কিছু মিস করবেন

টেলিকম ডিপার্টমেন্টের আধিকারিক অরুণা সুন্দরজান বলেন, “এই ক্ষেত্রে, টেলিযোগাযোগ বিভাগের প্রায় সকল পরামর্শ গৃহীত হয়েছে। আমরা আশা করি এই প্রক্রিয়াটি পরবর্তী ৩ মাসের মধ্যেই শুরু করা যাবে। এখন এই বিষয়ে আর কোনও অনুমতি নেওয়া বাকি নেই। এই ক্ষেত্রে টেলিকম কমিশনের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। ”

এই ক্ষেত্রে,ভারতের টেলিকম রেগুলেটিং সংস্থা ট্রাই বলছে, “ফ্লাইট কর্তৃপক্ষ মোবাইল যোগাযোগ এবং ইন্টারনেটের উপলব্ধতার সুপারিশ করে দিয়েছে। এর আগে, সরকার নিরাপত্তার কারণে ইন-ফ্লাইট সংযোগ প্রত্যাখ্যান করেছিল।কিন্তু এবার সমস্ত দিক থেকে সবুজ সংকেত পাওয়া গিয়েছে, যার ফলে অল্প কিছু দিনের মধ্যেই সমস্ত কাজ শুরু করা হবে।”

ইন-ফ্লাইট সংযোগটি কিভাবে কাজ করবেঃ- এই সুবিধা প্রদানের জন্য, ইন-ফ্লাইট কানেক্টিভিটির একটি লাইসেন্স তৈরি করতে হবে প্রত্যেক ব্যক্তিকে। এই ক্যারিয়ারের মাধ্যমে লাইসেন্স ফি জন্য ১ টাকা চার্জ করা হবে।

এখন যে ইন-ফ্লাইট কানেক্টিভিটি সবুজ সংকেত পেয়েছে, তা এখানে প্রশ্নটি হল এই পরিষেবাটির জন্য কতটা খরচ করতে হবে যাত্রীদের? কিছু সময় আগের রিপোর্ট অনুযায়ী, যাত্রীদের জন্য ৩০% ওভারলে ফ্লাইট ফি দিতে হবে বিমানের মধ্যে মোবাইল ফোন এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য।এবার থেকে আর বিমানের মধ্যে বসে আপনার মোবাইলটিকে মিস করতে হবে না, মোবাইল রাখতে পারবেন আপনার সঙ্গেই, করতে পারবেন ইচ্ছে মতো ইন্টারনেট সার্ফ।

Please follow and like us: