অন্যান্য টেক

কুকুরের ভাষা বুঝতে পারবে মানুষ, এমনই চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করছে বিজ্ঞান

কুকুরের ভাষা বুঝতে পারবে মানুষ, এমনই চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করছে বিজ্ঞান

ওরা মানুষ নয়।বরং আমরাই হলাম মানুষ।এই দুই জীবের মাঝে রয়েছে অনেক পার্থক্য ।আর তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি পার্থক্য হল ভাষা। কুকুরের ভাষা মানুষে বুঝতে পারে না।সাধারণত কুকুরও বোঝে না মানুষের ভাষা। কিন্তু যদি এমন এক সিস্টেম আবিষ্কার করা যায়, যা কি না কুকুরের ঘেউঘেউকে ডাকেই মানুষের ভাষায় প্রকাশ করে দেবে, তা হলে কেমন হত বলুন ? কল্পবিজ্ঞানের গল্পের ঝুরি বলে মনে হচ্ছে ? কিন্তু পশু-ব্যবহার বিশেষজ্ঞ প্রফেসর কন স্লোবোডচিকফ দাবি করেছেন, আর মাত্র কয়েক বছরের মাঝেই তিনি তৈরি করে ফেলবেন এমন সিস্টেম !

gizbot.com -এ প্রকাশিত একটি খবরের সূত্রানুযায়ী জানা যাচ্ছে, নর্দার্ন অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক স্লোবোডচিকফ এই বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘ ত্রিশ বছর ধরে গবেষণা করে চলেছেন।

আরও পড়ুনঃ- এবার হাওড়া ষ্টেশন থেকে ট্যাক্সিতে মিলবে নতুন উন্নত মানের পরিষেবা।

বিশেষজ্ঞ প্রফেসর স্লোবোডচিকফ বলেছেন, তিনি দিনের পর দিন অর্থাৎ চতুর্থ দিন বিভিন্ন মেজাজে কুকুরের ভিন্ন ভিন্ন গলার স্বর নিয়ে তিনি বিভিন্ন ভাবে পরীক্ষা করেছেন।তাঁর কথা অনুযায়ী, এটি হবে এমন একটি অনুবাদক যন্ত্র, যা কি না কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন, তাকে সেই সব আলাদা আলাদা কুকুরের ডাকের তথ্য দিয়ে দিলে সে বের করে ফেলবে কুকুরের কোন ডাকের কী অর্থ। আপাতত বিষয়টি নিয়ে গবেষণা চালিয়ে জাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ প্রফেসর স্যার স্লোবোডচিকফ।এবার এটাই দেখার, কবে তিনি যন্ত্র আবিস্কার করে সুখবর দেন। যদি সত্যিই তিনি সফল হন তাঁর গবেষণায়, তা হলে তা হবে এক যুগান্তকারী অবিশ্বাস্য আবিষ্কার,এ বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই।

যদিও গৃহ পালিত বিভিন্ন পশুর শরীরী ভাষা দেখেই করে অনেক সময়ই তাদের মালিকরা বুঝে যান,  তারা কী বলতে চাইছে। কিন্তু বিশেষজ্ঞ প্রফেসর স্লোবোডচিকফের এই সিস্টেম আবিষ্কার হলে আর আন্দাজ করতে হবে না, একেবারে সঠিক ভাবেই জানা যাবে, প্রিয় পশ্যটি কী বোঝাতে চাইছে।

Please follow and like us: